World Cup Fantasy বিশ্বকাপ ভাবনা

The whole world is rampant
বিশ্বজুড়ে কোলাহল আজ
With world cup spree
মাঠেঘাটে দৌড়ঝাঁপ,
People all over the world
সাতশো কোটি মানুষ বলছে -
Are bustling in the fields.
আসছে ফুটবল বিশ্বকাপ।


The whole country is decked out
সাজলো সাড়া দেশটা,

 In flags of various nations,
সাজলো সাড়া দেশটা,
Supporters are desperate
প্রিয় দলকে সামনে রাখতে -
To see own teams conquer.
করছে সবাই চেষ্টা।


Real life father and son
বাপে-ছেলে ভিন্ন দলের -
On the field in opposition,
দুই পতাকা কিনছে,
Waving in frenzy
প্রতিপক্ষ হয়ে তারা -
Flags of countries of own choice.
খেলার মাঠে নামছে।


 Game lovers are crazy
প্রবাসীদের ভাবনা শুধু -
To watch classy games,
প্রিয় – দলের খেলা দেখবেন,
Be it Brazil, France, Argentina
ব্রাজিল, ফ্রান্স, আর্জেন্টিনা -
Portugal or Spain.
পর্তুগাল আর স্পেন।

Speculations are going on
মাঝে মধ্যে আলোচনায় -
Predictions are there
শোনা যাচ্ছে কাহিনী ,
That fabulous strike will be
এবার কিন্তু ভালো খেলবে -
From Germany and England.
ইংল্যান্ড আর জার্মানি।


 Uruguay is in fleet
উরুগুয়ের মন উড়ুউড়ু -
Planning different tricks,
কিভাবে কি খেলি,
But alas no more in the run
এবার কিন্তু বাদ পড়েছে -
Italy, Chile and Holland.
চিলি হল্যান্ড ইতালি।


Australia is in onslaught,
অস্ট্রেলিয়া অস্টঘাতে -
And Japan is in stress,
টেনশনে আছে জাপান,
Belgium is in deep thought of
দ্বিতীয় রাউন্ডে যাবে কিনা -
Getting to second phase.
ভাবছে বসে বেলজিয়াম।
 

World famous players are
পেলে কিংবা ম্যারাডোনা -
Mara Dona and Pele,
নাম করেছে বিশ্বে,
Neymar and Messi are getting ready,
নেইমার মেসি তাদের ভেবে -
Following their footsteps
শেষ প্রস্তুতি নিচ্ছে।
 

Coffee or tea break leisure
কাজের ফাঁকে কফি আড্ডায় -
Amidst various occupation,
ভাবনা শুধু একটা ,
There pervades the only thought
পারবে কি চ্যাম্পিয়ন হতে -
Whether my team will be the champion!
আমার প্রিয় দেশটা।


Written by
Asit Kumar Baroi (Bangali)

অসিত কুমার বাড়ৈ ( বাঙ্গালি )
Asit Kumar Baroi

In partnership with Banglar Kantha, step into the world of the migrant workers through a series of poems that illustrate their experiences in life through their eyes.